মাল্টিভিটামিন এর উপকারিতা কি? – BDinquiry QA | Bangla Proshno Uttor | প্রশ্ন-উত্তর

All Questions & AnswersCategory: Any Subjectমাল্টিভিটামিন এর উপকারিতা কি? – BDinquiry QA | Bangla Proshno Uttor | প্রশ্ন-উত্তর
Editor Staff asked 1 month ago

মানুষের শরীরে বিভিন্ন সময়ে ভিটামিনের চাহিদা তৈরি হয়। বিশেষ করে বয়স বাড়ার সাথে সাথে শরীরে ভিটামিনের চাহিদা আরও বৃদ্ধি পায়। প্রাকৃতিক উপায়ে আমরা এই ধরণের ভিটামিন গ্রহণ করলেও অনেক সময় তা সবার জন্য সম্ভব হয়ে ওঠে না। তখন মাল্টিভিটামিন সাপ্লিমেন্ট এর প্রয়োজন হয়। তাই এই ক্ষেত্রে মাল্টিভিটামিনের অনেক উপকারিতা রয়েছে। সেগুলো নিচে তুলে ধরলামঃ

কর্মশক্তির যোগান: প্রতিটি মানুষেরই আছে নিজস্ব ব্যস্ততা আর দিন শেষে কমবেশি সবাই ক্লান্ত। কর্মব্যস্ত জীবনযাত্রায় টিকে থাকার প্রয়োজনে ‘মাল্টিভিটামিন’ অনেকাংশে জরুরি। কারোহাইড্রেইট, চর্বি আর প্রোটিনের মাঝে আটকে থাকা কর্মশক্তিকে কাজে লাগাতে কার্যকর ভূমিকা রাখে ভিটামিন বি। আর মাল্টিভিটামিন থেকে পাওয়া যায় ঠিক সেটাই, যা পানিতে দ্রবণীয়। এই ভিটামিন বি কোষকে জ্বালানি যোগায় যা আমাদের দৈনন্দিন জীবনের সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়া শক্তি যোগাবে। পাশাপাশি শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে কার্যক্ষমতা অক্ষুণ্ন রাখতেও ভিটামিন বি গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান।

ক্যান্সারের ঝুঁকি: মাল্টিভিটামিন এর সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ উপকারিতা হল ক্যান্সারের বিরুদ্ধে এর কার্যকারীতা। চিকিৎসকের পরামর্শ মাফিক সেবন করা সঠিক মাত্রার মাল্টিভিটামিন প্রতিদিন যোগাবে ‘ফোলিক অ্যাসিড’, যা অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্তকণিকাকে পুরো শরীরে ছুটে বেড়াতে সাহায্য করে। পাশাপাশি অবসাদ ও রক্তশূন্যতা কাটায়, গর্ভবতী নারীদের ভ্রণের খাবার যোগায় এবং রোগ থেকে দূরে রাখে। বেশিরভাগ মানুষেই পর্যাপ্ত পত্রল সবজি খায় না, তাই ‘ফোলেট’য়ের ঘাটতি থেকে যায়। মাল্টিভিটামিন’য়ের মাধ্যমে সেই ঘাটতি পূরণ করা সম্ভব।

হৃদযন্ত্রে শক্তি যোগায়: অসংখ্য মানুষের হৃদযন্ত্র পুরোপুরি স্বাস্থ্যবান না হওয়ার পরেও কাজ করে যাচ্ছে নিরলসভাবে। এই বিশেষ অঙ্গটির সুস্বাস্থ্যের চিন্তা প্রতিটি মানুষের প্রধান চিন্তা হওয়া উচিত। হৃদযন্ত্রের জন্য সহায়ক খাদ্যাভ্যাস তো থাকবেই, পাশাপাশি ‘মাল্টিভিটামিন’য়ের মাধ্যমে যদি হৃদযন্ত্রকে বাড়তি শক্তি যোগানো যায় তবে তা আরও উপকারী হবে। ভিটামিন ডি থ্রি, ভিটামিন কে টু, ফোলেট এবং ভিটামিন বি টুয়েলভ সবগুলো হৃদযন্ত্রের জন্য উপকারী।

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে: একটা সময় আপনার মস্তিষ্ক ও স্মৃতিশক্তি ছিল প্রখর, নিত্যনতুন সৃষ্টিশীল চিন্তা ঘুম কেড়ে নিত। কিন্তু এখন রাতের বেলা সকালের নাস্তায় কি ছিল তা মনে করতেই বেগ পেতে হয়, জানা বিষয়গুলোও মনে করতে বেগ পেতে হয়। স্বভাবতই বয়সের সঙ্গে মস্তিষ্কের ক্ষমতা কমছে। তবে সঠিক ‘মাল্টিভিটামিন’ এই ক্ষয় কমাতে পারে। 

সাবধানতা: মাল্টিভিটামিনের এতো উপকারিতা জানার পর সবাই হয়ত মাল্টিভিটামিন গ্রহণ করতে চাইবেন। তবে খেয়াল রাখবেন, চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া নিজে নিজেই মাল্টিভিটামিন গ্রহণ করা প্রচণ্ড ঝুঁকিপূর্ণ। অতিরিক্ত মাত্রায় যেকোনো স্বাস্থ্যকর বস্তুও স্বাস্থ্যহানির কারণ হয়, মাল্টিভিটামিন এর ব্যাতিক্রম নয়। তাছাড়া এর অনেক অপকারিতা বা ক্ষতিকর দিক এবং সাইড ইফেক্ট বা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে। সেগুলো জানতে এখানে দেখুন।