ঘুম ও স্বপ্ন সম্পর্কে ৭ টি অজানা তথ্য জানুন

By | November 26, 2017

ঘুম আমাদের সকলের জন্যে খুব জরুরী একটি বিষয়। কারণ মানুষ খাবার ছাড়া বেঁচে থাকতে পারলেও ঘুম ছাড়া বেঁচে থাকতে পারে না। অবাক হলেও কথাটি সত্যি। ঘুম সম্পর্কে এই ধরনের আরও অজানা তথ্য নিয়ে আজকে আমাদের এই পোস্ট।

১। যখন আমরা ঘুমাই তখন আমাদের মস্তিষ্ক শক্তি লাভ করে। এবং আমাদের শরীরের সারাদিনে নষ্ট হওয়া কোষগুলো নিজে নিজে ঠিক হয়। এবং আমাদের শরীরের গুরুত্ব পূর্ন হরমোন নিঃসরণ করে যা আমাদের দেহের হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখে।

২। বয়স অনুসারে প্রত্যেকের ভিন্ন ভিন্ন সময়ের ঘুমের প্রয়োজন হয়। একেক বয়সের মানুষের ঘুমের সময়কাল একেকরকম হয়ে থাকে।

৩। বাচ্চাদের – ১৬ঘন্টা, ৩ থেকে ১২ বছর বয়সীদের– ১০ঘন্টা, ১৩ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের – ১০ঘন্টা, ১৯ থেকে ৫৫ বছর বয়সীদের – ৮ঘন্টা, ৬৫ বছরের উপরে – ৬ঘন্টা ঘুমের প্রয়োজন।

৪। পুরুষ ঘুমের সময় তার স্বপ্নে অন্য পুরুষকে দেখে থাকেন প্রায় ৭০% সময়, কিন্তু নারী তার স্বপ্নে পুরুষ এবং নারী উভয়কেই সমান সময়ের জন্য দেখে থাকেন।

৫। আমরা আমাদের জীবনের সাথে সম্পর্কিত মানুষকেই স্বপ্নে দেখি। অথবা যখন আমরা কোনো একজন মানুষকে ভাবতে ভাবতে ঘুমুতে যাই তখন ঘুমের মধ্যে আমারা তাকে সপ্নে দেখি। একেবারেই অপরিচিত মুখ স্বপ্নে দেখা খুব কমই হয়ে থাকে।

৬। প্যারাসমনিয়া একধরনের ঘুম সম্পর্কিত রোগ যা মানুষকে ঘুমের মধ্যে অস্বাভাবিক কাজ করতে বাধ্য করে। এই রোগের কারনে অনেক ধরনের অপরাধ পর্যন্ত করতে পারে মানুষ।আজ পর্যন্ত এই রোগের কারনে সংঘটিত হওয়া অপরাধ গুলোর মধ্যে ঘুমের মধ্যে গাড়ী চালানো , হত্যা, শিশুনির্যাতন এবং ধর্ষন সব চাইতে গুরুতর।

৭। ১২% মানুষ সাদা কালোতে স্বপ্ন দেখে। যখন সাদাকালো টিভির চল ছিল তখন বেশীরভাগ মানুষ সাদাকালো স্বপ্ন দেখতেন। গবেষণায় দেখা যায় রঙিন টিভি আসার পর থেকে সাদাকালো স্বপ্ন দেখার সংখ্যা অনেক বেশি কমে গিয়েছে।
ঘুমের মধ্যে স্বপ্ন দেখা ঘুমের স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। যে মানুষ স্বপ্ন দেখেন না একেবারেই সে মানসিকভাবে অশান্তিতে রয়েছন কিংবা তার ঘুম সংক্রান্ত মারাত্মক রোগ রয়েছে।

(পোস্টটি 4 জন দেখছেন)

If you think it is helpful,Share the post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *